1. info@www.dailyrupantor.com : news :
বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৭:৩৮ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
নওগাঁয় শতভাগ স্বচ্ছতার ভিত্তিতে কনস্টেবল পদে নিয়োগের ঘোষণা অ্যাকসেস বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের আয়োজনে বিভাগীয় প্রাক বাজেট আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ভাগ্য খুলেছে কলাপাড়াবাসীর, অধ্যক্ষ মহিববুর রহমানের প্রতিমন্ত্রী হওয়ার খবরে কলাপাড়ায় আনন্দ মিছিল, মিষ্টি বিতরণ। নতুন মন্ত্রিসভার শপথ আজ, মন্ত্রী ২৫ প্রতিমন্ত্রী ১১ জন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনঃ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ইশতেহারে ১১ অগ্রাধিকার কলাপাড়ায় এক কেজি ৫০০ গ্রাম গাঁজা সহ এক মাদক ব্যাবসায়ী আটক কলাপাড়া থানার ওসিকে প্রত্যাহার চেয়েছে নির্বাচন কমিশনসহ সংশ্লিস্ট দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দাখিল।। ঝিনাইগাতীর এক কালের খরস্রোতা মহারশী নদী এখন মরাখালে পরিণত শিবচরে পত্রিকা পরিবহনের স্বত্বাধিকারীর অকাল মৃত্যু  অবাধ-সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য তৎপরতা চালিয়ে যাবে যুক্তরাষ্ট্র-জন কিরবি

নেছারাবাদে একটি নাটের উপরে আয়রন ব্রিজ : দুর্ঘটনার আশঙ্কা

বরিশাল প্রতিনিধিঃ
  • প্রকাশিত: সোমবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২৩
  • ১৮০ বার পড়া হয়েছে

বরিশাল প্রতিনিধিঃ

পিরোজপুরের নেছারাবাদে বয়া খালের উপর নির্মিত বলদিয়া ও সুটিয়াকাঠী সংযোগ সেতুটি ঝুলে আছে একটি নাটের উপর ভর করে। যেকোনো সময় ঘটে যেতে পারে মারাত্মক দুর্ঘটনা।

স্থানীয়রা জানান, দুইটি ইউনিয়নের শেষ প্রান্ত হওয়ায় এই ব্রীজের কোন মেরামত হয় না। জেলা পরিষদ বরাবরে একাধিকবার সংস্কারের জন্য অনুমোদনের আবেদন করলেও অদৃশ্য কারণে কোন ফলাফল পাচ্ছিনা। নেছারাবাদ ও নাজিরপুর উপজেলার মানুষের চলাচলের রাস্তা এটি। প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ, ছাত্র-ছাত্রী ও যানবহন চলে এই ব্রিজটি উপর দিয়ে। জনগুরুত্বপূর্ণ এই সংযোগ সেতুটি অতি জরুরি সংস্কার করা আবশ্যক।

স্থানীয় ব্যবসায়ী আরিফ বলেন, এই ব্রিজটি নিচু হওয়ার কারণে পন্যবাহী ট্রলার কিংবা জাহাজ ধারা বারবার আঘাতপ্রাপ্ত হয়। কিছুদিন আগে এম ভি বাহাদুর নামে জাহাজ ব্রিজটিকে আঘাত করলে ব্রীজটির ক্ষতিসাধন হয়, এবং ওই জাহাজের মালিক সেলিম ব্রীজ মেরামতের জন্য ৬ হাজার টাকা জরিমানা দেয়। সেলিমের সাথে যোগাযোগ করি তিনি বলেন, চেয়ারম্যানের সাথে আমার বুঝ-পাট্টা হয়েছে। আপনারা আমাকে ফোন করে বিরক্ত করবেন না। যা বলার চেয়ারম্যানকে বলবেন।

জাহাজের মালিক সেলিমের সাথে যায়যায়দিন এর প্রতিবেদক ব্রিজ সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এই ব্যাপারে চেয়ারম্যানের সাথে আমার কথা হয়েছে বলে ফোনটি কেটে দেন।

স্থানীয় ৪ নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি মেম্বার ফারুক হোসেন বলেন, এখানে একটি স্কুল ও মাদ্রাসা আছে ছাত্র-ছাত্রীরা এখান থেকে চলাচল করে। একটি নাটের উপর এই ব্রিজ ঝুলে আছে। জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এখন পর্যন্ত দৃষ্টি দেয়নি। তিনি যদি দৃষ্টি দেন তাহলে বড় ধরনের দুর্ঘটনা থেকে আমরা বাঁচতে পারি।

এ ব্যাপারে বলদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান সাঈদ বলেন, আমার সাথে জাহাজের মালিক সেলিমের সাথে কথা হয়েছে, সে জরিমানা স্বরূপ ৬ হাজার টাকা দিয়েছে ওই টাকা দিয়ে ৪নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মহাসিন মেম্বারের মাধ্যমে সংস্কারের কাজ করা হবে। এটা সম্পূর্ণ সংস্কারের জন্য কমপক্ষে ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকা দরকার। এ ব্যাপারে জেলা পরিষদে একটি আবেদন দেয়া আছে।

এ বিষয়ে জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান জাকারিয়া খান স্বপন বলেন, আমি নির্বাচিত হয়ে পূর্বে ব্রিজটি সংস্কারের জন্য পাঁচ লক্ষ টাকা অনুমোদন করিয়ে দিয়েছিলাম। এ ব্যাপারে স্থানীয়রা যদি পুনরায় আবেদন করে তাহলে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: বাংলাদেশ হোস্টিং