1. info@www.dailyrupantor.com : news :
বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৭:০৭ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
নওগাঁয় শতভাগ স্বচ্ছতার ভিত্তিতে কনস্টেবল পদে নিয়োগের ঘোষণা অ্যাকসেস বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের আয়োজনে বিভাগীয় প্রাক বাজেট আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ভাগ্য খুলেছে কলাপাড়াবাসীর, অধ্যক্ষ মহিববুর রহমানের প্রতিমন্ত্রী হওয়ার খবরে কলাপাড়ায় আনন্দ মিছিল, মিষ্টি বিতরণ। নতুন মন্ত্রিসভার শপথ আজ, মন্ত্রী ২৫ প্রতিমন্ত্রী ১১ জন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনঃ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ইশতেহারে ১১ অগ্রাধিকার কলাপাড়ায় এক কেজি ৫০০ গ্রাম গাঁজা সহ এক মাদক ব্যাবসায়ী আটক কলাপাড়া থানার ওসিকে প্রত্যাহার চেয়েছে নির্বাচন কমিশনসহ সংশ্লিস্ট দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দাখিল।। ঝিনাইগাতীর এক কালের খরস্রোতা মহারশী নদী এখন মরাখালে পরিণত শিবচরে পত্রিকা পরিবহনের স্বত্বাধিকারীর অকাল মৃত্যু  অবাধ-সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য তৎপরতা চালিয়ে যাবে যুক্তরাষ্ট্র-জন কিরবি

রাঙ্গাবালী সরকারি কলেজের ফলাফল ঘিরে নিন্দা ঝড়!

ডেস্ক রিপোর্টঃ
  • প্রকাশিত: সোমবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২৩
  • ১৯৮ বার পড়া হয়েছে

ডেস্ক রিপোর্টঃ 

পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী সরকারি কলেজের এইচএসসির ফলাফল প্রকাশের পর থেকেই নিন্দা ঝড় বইছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে। সেখানে শিক্ষকদের অভ্যন্তরীন দ্বন্দ্ব ও পাঠদানে উদাসীনতার অভিযোগ তুলে ধরা হয়। আর অভিভাবকরা ফলাফলের কারণে শিক্ষকদের প্রতি নিন্দা প্রকাশ করেছেন। এমন ফলাফলের কারনে শিক্ষার্থীদেরকে দুষলেন সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ।

জানা গেছে, রাঙ্গাবালী উপজেলায় ২০২৩ সালে এইচএসসি পরীক্ষায় জেনারেল, কারিগরি ও মাদরাসা হতে ৬৯৮ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেয়। এদের মধ্যে অকৃতকার্য হয়েছে ২৮২ জন। তার মধ্যে ২৩২ জন শিক্ষার্থী হলেন রাঙ্গাবালী সরকারি কলেজের।

ফলাফল প্রসঙ্গে অভিভাবকরা বলেন, ‘রাঙ্গাবালী সরকারি কলেজ এখন রাজনীতির পাঠশালা হিসেবে গড়ে উঠছে। এখানে ছাত্রদের ওপর নেই শিক্ষকদের কঠোর নজরদারী। বাসা হতে কলেজের নাম করে ছাত্রছাত্রীরা বেরিয়ে গেলেও যদি কলেজে অনুপস্থিত হয় সে তথ্য বাসায় জানানো শিক্ষকদের দায়িত্বের একটি অংশ। এছাড়াও শিক্ষকদের মধ্যে অধ্যক্ষ পদ নিয়ে লড়াই চলছে দীর্ঘদিন। যার কারণে নিয়মিত পাঠদান হতে বি ত হয় শিক্ষার্থীরা। তার জন্যই এমন নিন্দনীয় ফলাফল উপহার পেল।’

এ বিষয়ে রাঙ্গাবালী সরকারি কলেজ অধ্যক্ষ তরিকুল ইসলাম বলেন, ‘পড়াশোনা যেমন করবে রেজাল্ট তেমন হবে। কেন্দ্রে পরীক্ষা ফেয়ার হয়েছে। শিক্ষার্থীরা ভুল করলে সেখানে শিক্ষকদের কিছু করার নেই। আর অধ্যক্ষ পদ নিয়ে ঝামেলার প্রভাব পাঠদানে পড়ে নাই। পাঠদানে শিক্ষকরা যায় কিন্তু ছাত্ররা প্রাইভেট পড়ে পালিয়ে চলে যায়। এই ফলাফলে আমিও হতাশ।’

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: বাংলাদেশ হোস্টিং